News Bangla

মঙ্গলকোট ইউনিয়নে ঈদের জামাত

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পরেশ দেবনাথ| কেশবপুরের মঙ্গলকোট ইউনিয়নে শুক্রবার সকাল ৯ টায় ঈদের জামাত অনু্ষ্ঠিত হয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে এবার প্রত্যেক মসজিদে মসজিদে জামাত অনুষ্টিত হয়েছে। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার কথা শোনা যায়নি।

একমাস সিয়াম সাধনার পর খুশি আর আনন্দের বার্তা নিয়ে সকলের মাঝে এসেছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। ঈদ সব শ্রেণীর মানুষের মাঝে গড়ে তোলে সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য ও ঐক্যের বন্ধন। সাম্য মৈত্রী ও ভ্রাতৃত্বের মহিমান্বিত আহ্বানে শান্তি-সুধায় ভরে উঠবে প্রতিটি মানুষের হৃদয় -এমনটাই সকলের প্রানের চাওয়া। তাছাড়া দীর্ঘদিন ঘরবন্দি থেকে মানুষের জীবন হয়ে উঠেছে দুর্বিসহ। এমনই সময় ঈদ এসেছে আনন্দের বার্তা নিয়ে। তাই সকল প্রকার স্বাস্থ্যবিধি এবং সরকারি নীতিমালা যথাসাধ্য মেনে সচেতনতার সঙ্গে ঈদ উদযাপন করতে হয়েছে।

মঙ্গলকোট ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ সভাপতি অসুস্থ থাকায় মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আ: বারি সরদার ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াছ হোসেন মোড়লের পরিচালনায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাতে ঈমামতি করেন, মঙ্গলকোট বাজার জামে মসজিদের ঈমাম হাফেজ মো: ইছাহাক আলী দফাদার।

মঙ্গলকোট ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে নামাজ পড়েছেন, মঙ্গলকোট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রহমান সরদার, মঙ্গলকোট ইউপি সচিব মোকলেছুর রহমান, ঢাকা আর কে মেটালোর ম্যানেজার রহমত আলী, আওয়ামী লীগ নেতা সাজ্জাত মোড়ল, কেশবপুর নির্বাহী অফিসের টেকনিশিয়ান শরীফ আলম রাজু, ডা: মোশারফ হোসেন, মঙ্গললোট হাট কমিটির মালিক নওয়াব আলী, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সাত্তার গাজী প্রমূখ।

মঙ্গলকোট বাজার জামে মসজিদের ঈমাম হাফেজ মো: ইছাহাক আলী দফাদার বলেন, সরকারী নীতিমালা মেনে চলে ঈদের জামাত অনু্ষ্ঠিত হয়েছে। মহামারী করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রেহাই পেতে ও দেশের মঙ্গলের জন্য মোনাজাত করা হয়েছে। মঙ্গলকোট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাছুদুজ্জামান মাসুদ ঈদের নামাজ পড়েন কেশবপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে।

এছাড়া কেশবপুরের পাঁজিয়া ইউনিয়নের পাঁজিয়া পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদে সকাল ৯টায় ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঈদের জামায়াতের ইমামতি করেন আহম্মদ আলী। পাঁজিয়া ইউনিনের বিভিন্ন মসজিদে শান্তিপূর্ণভাবে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিটি মসজিদেই করোনা থেকে মুক্তি পেতে দোয়া পাঠ করা হয়েছে।