News Bangla

কেশবপুরে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে ঘর নির্মানের চেষ্টা বন্ধ করলো পুলিশ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

কেশবপুর পৌর শহরের ১নং ওয়ার্ডের হাসপাতালের পূর্ব পার্শ্বের শেখ আব্দুল মজিদের ছেলে শেখ ভিলার স্বত্ত্বাধিকারী শেখ শহীদুল্লাহ এর বসত বাড়ির পাশে ৪ শতাংশ জমি ক্রয় করে সেখানে বসত ঘর নির্মান করছেন উপজেলা তেঘরি এলাকার আসাদুজ্জামান মোড়লের ছেলে সাজ্জাত হোসেন।

তিনি বসত ঘর নির্মানের সময় নিজের জমির সাথে শহীদুল্লাহ এর ফাকা একটি জমি দখল করে সেখানে স্থাপনা নির্মান শুরু করেন। বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিকভাবে নিষেধ করলে কাজ বন্ধ রাখে। পরবর্তীতে কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি, একদল সন্ত্রাসী গ্রুপ ম্যানেজ করে জোরপূর্বক জমি দখল করে স্থাপনা নির্মান কার্যক্রম অব্যহত রেখেছে।

নিরুপায় হয়ে শেখ শহীদুল্লাহ কেশবপুর মৌজার ১২৪ খতিয়ানের ২৫০ দাগের ১১ শতক তাদের মালিকানাধীন জমিতে স্থাপনা নির্মান বন্ধে বিজ্ঞ আদালতে নিষেধাজ্ঞার আবেদন করেন। বুধবার বিজ্ঞ আদালত ওই জমিতে নতুন স্থাপনা বন্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। যার মামলা নং-১০২৭/২১ ধারা ফৌঃ কাঃ বিঃ আইনের ১৪৪ এবং স্মারক নং-১৯১৮, তাং-০৬.১০.২১। আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক কেশবপুর থানা পুলিশ শাস্তি শৃংখলা বজায় রাখার স্বার্থে উল্লেখিত স্থানে স্থাপনা নির্মান কাজ বন্ধ করে দিয়েছে।

আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে সাজ্জাত হোসেন কতিপয় জনপ্রতিনিধিকে বিপুল পরিমান উৎকোচ দিয়ে বৃহস্পতিবার স্থাপনা নির্মান শুরু করে। খবর পেয়ে কেশবপুর থানার উপপরিদর্শক লিখন সরকার ঘটনাস্থলে গিয়ে শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার স্বার্থে সকল নির্মান কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

কেশবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বোরহান উদ্দীন বলেন, আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক ওই জমিতে স্থাপনা নির্মান কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। নির্দেশ অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।