News Bangla

এমপি ক্ষমা চাইলেন হেফাজতের তাণ্ডব রুখতে না পারায়

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডব রুখতে না পারায় ক্ষমা চেয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর ও বিজয়নগর) আসনের সংসদ সদস্য র. আ. ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। তিনি বলেছেন, ‘যাদের কাছে আশা করেছিলাম শিষ্টাচার, ভদ্রতা, যারা আমাদের শিক্ষা দেবে কীভাবে সভ্য হয়ে চলা উচিত এবং যারা মানুষকে ধর্মীয় শিক্ষা দেবে, যখন দেখি তাদের লোক এসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল ও পুলিশের এপিসি খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে ভেঙেছে এবং আগুন দাউ দাউ করে জ্বলা সত্ত্বেও ফায়ার সার্ভিস নির্বিকার ছিল, এটা যখন দেখি এবং আমি কিছু করতে পারি না- তখন আপনাদের প্রতিনিধি হিসেবে আমি লজ্জা পাই। আমার মাথা হেঁট হয়ে আসে। আপনারা আমাকে ক্ষমা করবেন।’ খবর-বাংলা ট্রিবিউন।

তিনি আজ মঙ্গলবার (১১ মে) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের জাতীয় বীর আব্দুল কুদ্দুস মাখন পৌর মুক্তমঞ্চে দরিদ্র ও অসহায়দের জন্য প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা প্রদান উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা কর্তৃপক্ষ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী জনতার উদ্দেশে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর এ মানবিক সহায়তা কোনও দান নয়। এটি আপনাদের  অধিকার। এটি আপনাদের প্রাপ্য। যে প্রাপ্যের বৃহৎ অংশ আমরা (জনপ্রতিনিধি) চুরি করে খাই। গরীব মানুষ পায় না। সেই গরীব মানুষদের কিছু দান-খয়রাত করে আমরা নিজেদের অপরাধ ঢাকতে চাই। আমাদের অপরাধ আমরা ঢাকতে পারবো কিনা জানি না। আপনারা আমাদের কীভাবে দেখবেন আমরা জানি না। আমি বারবার আপনাদের কাছে ক্ষমা চাই।‘

উপকারভোগীদের উদ্দেশে এমপি বলেন, ‘আজযে আপনারা দরিদ্র অবস্থায় আছেন, আপনারা যে সহায়তা নেওয়ার জন্য এসেছেন, এটার জন্যও আমরা যারা রাষ্ট্র চালাই, দেশ চালাই এবং যারা দেশের মুরুব্বী বলে দাবি করেন, তারাও দায়ী। সব মানুষের জন্য আমরা অন্য, বস্ত্র ও শিক্ষার ব্যবস্থা করতে পারিনি- সেটার জন্যও আমরা দায়ী।‘

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র নায়ার কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খাঁন, পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মনজুরুল আলম।

পরে আলোচনা শেষে অতিথিরা অসহায় ও দুস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা হিসেবে নগদ অর্থ বিতরণ করেন।