News Bangla

আফগান রাজধানী কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা রয়েছে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আফগান রাজধানী কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা রয়েছে জানিয়ে নিজেদের নাগরিকদের সতর্ক করে দিয়েছে বেশ কয়েকটি দেশ। অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্য এই ধরনের সতর্কতা জারি করেছে। বিমানবন্দরের বাইরে অবস্থানরতদের অবিলম্বে ওই এলাকা ছাড়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

তালেবান নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর কাবুল থেকে ৮২ হাজারের বেশি মানুষকে সরানো হয়েছে। ৩১ আগস্টের সময়সীমার মধ্যে প্রত্যাহার সম্পন্ন করার জোরালো চেষ্টা করছে বহু দেশ। বিমানবন্দরের ভেতরে ও বাইরে অবস্থান নিয়ে বহু মানুষ এখনও দেশটি ছাড়তে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

সময়সীমা বাড়ানোর বিরোধিতা করেছে তালেবান। তবে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন ৩১ আগস্টের পর বিদেশি এবং আফগানদের দেশ ছাড়তে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তালেবান।

বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম্যারিজ পায়েন বলেন, কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার অব্যাহত এবং উচ্চ ঝুঁকি রয়েছে। এই সতর্কতার কয়েক ঘণ্টা আগে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর থেকে কাবুল বিমানবন্দরের আবি গেট, পূর্ব গেট এবং উত্তর গেটে অবস্থানরতদের অবিলম্বে এলাকা ছাড়তে বলা হয়।

যুক্তরাজ্যের তরফ থেকেও এই ধরনের পরামর্শ দিয়ে নিরাপদ অবস্থানে সরে গিয়ে পরবর্তী নির্দেশনার জন্য অপেক্ষা করতে বলা হয়। ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দফতর থেকে বলা হয়, আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি দ্রুত বদলানো অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া সন্ত্রাসী হামলার জোরালো আশঙ্কার কথাও বলা হয়।

তবে কোনও দেশের পক্ষ থেকেই নিরাপত্তা হুমকির বিষয়ে বিস্তারিত আর কিছু জানানো হয়নি। তবে গত মঙ্গলবার দেওয়া এক ভাষণে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, আফগানিস্তানে ইসলামিক স্টেট গ্রুপের হুমকি বাড়তে থাকায় যুক্তরাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত প্রত্যাহার শিগগিরই শেষ হয়ে যেতে পারে। সূত্র-বাংলা ট্রিবিউন।